—সৌম্যের টর্নেডো, মিঠুনের ঝড়, আবাহনীর রানের পাহাড়—

খেলাধুলা

ডি.পি.এল ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে রোববার (২১ এপ্রিল) মুখোমুখি হয় নাঈম ইসলামের লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ এবং মোসাদ্দেক হোসেনের আবাহনী লিমিটেড।আজকের ম্যাচটি মাশরাফিদের জন্য অঘোষিত ফাইনাল…!!

কারণ এই ম্যাচে রূপগঞ্জ জিতলে আবাহনীর আশা শেষ।আর জিতলে শিরোপায় চুমু দেয়ার স্বপ্ন টিকে থাকবে মোসাদ্দেকের। এমন ম্যাচটিতে জ্বলে উঠেন সদ্য বিশ্বকাপ স্কোয়াডে ডাক পাওয়া সৌম্য সরকার ও মোহাম্মদ মিঠুন।দুজনের তাণ্ডবে রান পাহাড়ে আবাহনী…!!!

হারলেই শিরোপা হাতছাড়া, এমন সমীকরণের ম্যাচে সাভারের তিন নম্বর মাঠে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন আবাহনীর দলনেতা মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। ‘অলিখিত ফাইনালে’ অধিনায়কের সিদ্ধান্ত যে ভুল ছিল না শুরু থেকে তারই যেন প্রমাণ দিয়ে গেলেন…!!

আগের আট ইনিংসে ব্যক্তিগত সংগ্রহ বড় করতে ব্যর্থ ছিলেন সৌম্য। ব্যর্থতার বৃত্ত থেকে বের হতে অবশেষে মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটিকেই বেছে নেন তিনি। শুরু থেকে দুর্দান্ত খেলতে থাকা বাঁহাতি এ ব্যাটসম্যান।তুলে নেন  লিস্ট ‘এ’ ক্যারিয়ারের পঞ্চম শতক।শেষ পর্যন্ত ১০৬ রানের ইনিংস খেলে থামেন তিনি।তার ইনিংসটি সাজানো ছিলো ১৫টি চার এবং ২টি ছক্কার সাহায্যে…!!

সৌমের সাথে ওপেন করা জহিলুল ইসলাম ফিরেন ব্যক্তিগত ৭৩ রানে। এরপর শান্ত ২৪, জাপর ৪৬ এবং সাব্বির ৩৪ করে ফিরলে ব্যাট হাতে নামেন মোহাম্মদ মিঠুন।রূপগঞ্জের বোলারদের দম বন্ধ করে তিনি।শেষ পর্যন্ত ৩৪ বলে ৬৪ রান করে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন মিঠুন।আর তাতে আবাহনীর সংগ্রহ দাঁড়ায় ৭ উইকেটের বিনিময়ে ৩৭৭ রান।…!!

Leave a Reply