2019 বিশ্বকাপে ‘এক্স ফ্যাক্টর’ বিধ্বংসী এই 10 জন

খেলাধুলা
-আর মাত্র নয় দিন পরই শুরু হবে দ্বাদশ ওয়ানডে বিশ্বকাপ আসর। সে সঙ্গে রণাঙ্গনে শুরু হয়ে যাবে লড়াই। কোন দল কেমন খেলবে, তা আগে থেকে আন্দাজ করা মুশকিল, তবে প্রতিটি দলেই এমন একজন তারকা রয়েছেন, যিনি দলের জন্য চলতি বছরের বিশ্বকাপে ‘এক্স ফ্যাক্টর’ হয়ে উঠতে পারেন…!!

আন্দ্রে রাসেল:- কোনো রকম ভূমিকার দরকার নেই, এই তারকার জন্য। আইপিএলে একাই প্রায় টেনে নিয়ে গিয়েছিলেন কেকেআরকে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই তারকা দুর্দান্ত ফিনিশার, ব্যাটে-বলে দক্ষ। রাসেল ফ্যাক্টর তাই দু’ বার বিশ্বকাপজয়ী দলের বড় প্রাপ্তি।

কুশল পেরেরা: শ্রীলঙ্কার এই তারকা বড় রান তাড়া করার ক্ষেত্রে ‘মাস্টারপিস’, শটও চমৎকার। ধারাবাহিকতা যে মারাত্মক রয়েছে, তা নয়। তবে দলের প্রয়োজনে তিনি পাশে দাঁড়িয়েছেন বহুবার। তাই শ্রীলঙ্কার একটা অস্ত্র কুশল।

কাগিসো রাবাদা: দক্ষিণ আফ্রিকার এই তারকা আইপিএলে চমৎকার পারফর্ম করে মন জয় করেছেন সবার। তাকে বলা হচ্ছে প্রোটিয়াসদের ‘পোটেনশিয়াল গেম চেঞ্জার’।

ফখর জামান: ২০১৭ সালে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে তার পারফরম্যান্স ভুলতে পারবে না ক্রিকেটপ্রেমীরা। পাকিস্তানের এই তারকা একা ম্যাচ জেতানোর ক্ষমতা রাখেন। পাকিস্তানের এক্স ফ্যাক্টর অবশ্যই তিনি। ইংল্যান্ডের মাটিতে সম্প্রতি পারফর্ম্যান্স বেশ ভাল ছিল তার।
রস টেলর: নিউজিল্যান্ডের এই তারকার অভিজ্ঞতাই তাকে দলের ‘এক্স ফ্যাক্টর’ করে তুলেছে। ২০০টি ম্যাচ খেলে ৮ হাজারের বেশি রান করেছেন তিনি। দ্রুত রান তাড়া করতে এই কিউই তারকার বিকল্প খুব কমই রয়েছে দলে। মিডল অর্ডারেও রাজা তিনি।
জস বাটলার: ইংল্যান্ডের অন্যতম ভরসা তিনি। ঘরের মাঠে বিশ্বকাপ জয়ের জন্য এমনিতেই মরিয়া ইংল্যান্ড। মারকুটে ব্যাটিংয়ের জেরে প্রতিপক্ষের ঘর থেকে ম্যাচ টেনে বের করতে জুড়ি মেলা ভার বাটলারের। দ্রুত রান তোলার ক্ষেত্রেও তিনি সবার আগে।
তামিম ইকবাল: যতবারই বড় স্কোর করেছেন তিনি। ততবারই জিতেছে বাংলা্দেশ। ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতেও দুরন্ত পারফরম্যান্স ছিল তামিমের। বাংলাদেশের বড় ভরসা তিনি। দলের এক্স ফ্যাক্টর বললে ভুল কিছু হবে না।
গ্লেন ম্যাক্সওয়েল: দলে তার অবদান নিয়ে কোনও কথা হবে। ভারত, পাকিস্তান প্রতিটি দলের বিরুদ্ধে খেলার ক্ষেত্রেই বার বার তিনি প্রমাণ করেছেন নিজেকে। অস্ট্রেলিয়াকে জিতিয়েছেন বেশ কয়েকবার। দলের এক্স ফ্যাক্টর তিনিই।
রশিদ খান: আফগানিস্তানের এই তারকা দলের অন্যতম বড় ভরসা। ফিল্ডিংও চমৎকার করেন। ব্যাটিংটাও খারাপ করেন না তিনি।
হার্দিক পাণ্ডিয়া: বিশ্বকাপে ভারতের অন্যতম বাজি হতে চলেছেন তিনি। আইপিএলে ব্যাটে-বলে দক্ষতা প্রমাণ করেছেন। ধ্বংসাত্মক ব্যাটিং, ক্ষুরধার বোলিংয়ের সঙ্গে পরিণত হচ্ছেন ধীরে ধীরে। বিরাট কোহালিকে ‘কমফোর্ট’-এ রাখতে তিনিই ‘এক্স ফ্যাক্টর’…!!