ঢাকা কলেজের এমন সাফল্যের নেপথ্যে “অধ্যক্ষ-উপাধ্যক্ষ”

বাংলাদেশ

সম্প্রতী মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা, ঢাকা অঞ্চল, ঢাকা কর্তৃক আয়োজিত “জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ -২০১৯”এ  ঢাকা বিভাগের ( ঢাকা মহানগর) বিভিন্ন ইভেন্টের প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত ফল প্রকাশ করে।এতে ঢাকা বিভাগের মধ্যে ঢাকা কলেজ সেরার খেতাব অর্জন করেছে…!!

“জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ -২০১৯”এ ঘোষিত তালিকায় যেন সেরার ঝুলিটা ভরপুর ঢাকা কলেজের।শেষ্ঠ কলেজ, শেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক এবং শ্রেষ্ঠ শ্রেণী শিক্ষকসহ  অনন্য ক্যাটাগড়িতে সাতটি শেষ্ঠ পুরস্কার পেয়েছে ঢাকা কলেজ…!!

১. শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ( কলেজ) হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে ” ঢাকা কলেজ, ঢাকা। “।
২. শেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক (কলেজ) হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন অধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ মোয়াজ্জম হোসনে মোল্লাহ্
৩.শ্রেষ্ঠ শ্রেণী শিক্ষক নির্বাচিত হয়েছেন (কলেজ) মোঃ আব্দুল হামিদ, রসায়ন বিভাগ।
৪.শ্রেষ্ঠ রোভার স্কাউট গ্রুপ হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে- “ঢাকা কলেজ রোভার স্কাউট গ্রুপ “।
৫. শ্রেষ্ঠ রোভার হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে – ঢাকা কলেজ রোভার স্কাউট গ্রুপের সিনিয়র রোভারমেট – কে. এম তারিক আজিজ সুমন।
৬. শ্রেষ্ঠ বি.এন.সি.সি. গ্রুপ হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে – ঢাকা কলেজ প্লাটুন।
৭. শ্রেষ্ঠ বি.এন. সি. সি ক্যাডেট হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে – ঢাকা কলেজ প্লাটুন’ র সি. ইউ.ও মো: ছালাউদ্দিন।
৮. কেরাত প্রতিযোগিতায় (ঘ গ্রুপ) শ্রেষ্ঠ হয় – ঢাকা কলেজের ইসলামি শিক্ষা ও আরবী বিভাগের শিক্ষার্থী মো: শামসুল হক।
৯. বাংলা রচনা প্রতিযোগিতায় (ঘ গ্রুপ) শ্রেষ্ঠ হয় -ঢাকা কলেজের সম্মান শ্রেণির শিক্ষার্থী আলমগীর হোসাইন।
১০. বিতর্ক প্রতিযোগিতা( একক) ঘ গ্রুপের শ্রেষ্ঠ হয় – ঢাকা কলেজের সম্মান শ্রেণির শিক্ষার্থী মাহমুদুল হাসান।

এমন সাফল্যে গর্বিত ঢাকা কলেজ পরিবার।কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র এবং হিন্দু কলেজের শিক্ষক জে. আয়ারল্যান্ডের (ঢাকা কলেজের প্রথম অধ্যক্ষ) সেই কলেজকে আরো পূর্ণতা দিয়েছেন বর্তমান অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষ। এমনটাই মনে করেন ঢাকা কলেজের অর্থিনীতি বিভাগের শিক্ষক প্রফেসর আয়শা আক্তার।…!!

অর্থনীতি বিভাগের এই শিক্ষক বলেন, ‘এখানে যা না বললেই নয় যে, এতোগুলো পুরস্কার অর্জনে ঢাকা কলেজের সম্মানীয় ও সুযোগ্য অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. মোয়াজ্জম হোসেন মোল্লাহ্ স্যার এবং সম্মানীয় ও সুদক্ষ উপাধ্যক্ষ প্রফেসর নেহাল আহমেদ স্যারের যোগ্য নেতৃত্বে সম্ভব হয়েছে।এ জন্য সম্মানীয় অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষ স্যারকে আন্তরিক অভিনন্দন। অভিনন্দন, পুরস্কার অর্জনকারী সংশ্লিষ্ট সকলকে…!!

আয়শা আক্তার ঈর্শান্বিত সাফল্যে সকলের কাছে দোয়া ছেয়ে বলেন, ‘ঢাকা কলেজের সকল শুভাকাঙ্খীর কাছে দোয়া প্রার্থনা করছি, যেন জাতীয় পর্যায়ে ঢাকা কলেজ, ঢাকা’র এই জয়ের ধারা অব্যাহত থাকে…!!

১৮৪১ সালের ১৮ জুলাই, ঢাকা’র প্রাণকেন্দ্র ‘নিজেকে জানো’ এমন নীতিবাক্যকে সঙ্গী করে বহু বাধা-বিপত্তি মাড়িয়ে এগিয়ে যাচ্ছে উপমহাদেশের প্রথম আধুনিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি…!!

Leave a Reply